সরকারি চাকরিজীবিদের ই-পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২১

সরকারি চাকরিজীবিদের ই-পাসপোর্ট করার ক্ষেত্রে কিছু খুবই ভাল সুবিধা রয়েছে। আপনি যদি যে কোন পর্যায় বা গ্রেডের একজন সরকারি চাকরিজীবি হয়ে থাকেন আপনি খুব সহজেই এবং অল্প সময়ের মধ্যে ই-পাসপোর্ট পেতে পারেন।

সরকারি চাকরিজীবিদের ই-পাসপোর্টের ধরণ

সরকারি চাকরিজীবিদের ২ ধরণের পাসপোর্ট রয়েছে, অফিসিয়াল পাসপোর্ট ও সাধারণ পাসপোর্ট। এগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানি।

অফিসিয়াল পাসপোর্ট

সরকারি কর্মকর্তাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম অন্য সাধারণ ব্যক্তি থেকে আলাদা।

যদি সরকারি কোন দায়িত্ব পালনে আপনাকে বিদেশ গমন করার আদেশ প্রদান করা হয়, তখনি আপনি অফিসিয়াল পাসপোর্ট পাওয়ার যোগ্য।

এক্ষেত্রে আপনার Government Order (GO) সরকারি আদেশের কপি এবং NOC বা অনাপত্তি সনদ প্রয়োজন হবে।

অফিসিয়াল পাসপোর্টের জন্য জরুরী আবেদন করার প্রয়োজন হয়না। স্বাভাবিকভাবেই আপনি জরুরীভিত্তিতে এই পাসপোর্ট পাবেন।

আরো একটি বিষয় হচ্ছে, অফিসিয়াল পাসপোর্ট শুধুমাত্র ৫ বছরের জন্যই প্রদান করা হয়। আপনি ১০ বছরের জন্য আবেদন করতে পারবেন না।

সরকারি চাকরিজীবিদের ই-পাসপোর্ট করার নিয়ম

সাধারণ পাসপোর্ট

যদি আপনি শুধুমাত্র একজন কর্মরত বা অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চাকরিজীবি হয়ে থাকেন এবং বিদেশ গমনের জন্য সরকারি আদেশপ্রাপ্ত না হন, আপনি সাধারণ ই পাসপোর্ট করবেন।

এক্ষেত্রে আপনার সুবিধা হলো, পুলিশ ভেরিফিকেশন ছাড়াই আপনি পাসপোর্ট করতে পারবেন। এছাড়া, রেগুলার ডেলিভারী ফি দিয়েই জরুরী সুবিধা পাবেন।

অফিসিয়াল পাসপোর্ট করার নিয়ম

অফিসিয়াল পাসপোর্টের জন্য আপনাকে ৫ বছর মেয়াদী ও সাধারন বা রেগুলার ডেলিভারীর জন্য আবেদন করতে হবে।

এক্ষেত্রে সাধারণ পাসপোর্ট দিয়েই আপনি জরুরী সুবিধা পাবেন। আপনাকে বাড়তি ফি দিতে হবেনা।

যদি আপনি কোন সরকারি দায়িত্ব পালন বা প্রশিক্ষণের জন্য বিদেশ যাওয়ার আদেশপ্রাপ্ত হন, আপনাকে পাসপোর্ট আবেদনের পূর্বে সবার আগে নিম্নলিখিত প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টসগুলো সংগ্রহ করতে হবে।

পাসপোর্ট রিনিউ করার নিয়ম

অফিসিয়াল ই-পাসপোর্টের জন্য যে ডকুমেন্টস প্রয়োজনঃ

  • সরকারি আদেশের কপি (Government Order copy)
  • সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/বিভাগ/ দপ্তরের অনাপত্তি সনদ (NOC)
  • আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র (National ID Card)

তারপর আপনি ৫ বছর মেয়াদী সাধারণ ই পাসপোর্টের জন্য আবেদন করবেন। যখন আপনি পাসপোর্ট আবেদনটি এনরোলমেন্টের জন্য জমা দিবেন, তখন আপনাকে অবশ্যই বলে দিতে হবে যে আপনি অফিসিয়াল পাসপোর্টের জন্য আবেদন করছেন। তাছাড়া, আপনার সরকারি আদেশ ও এনওসির কপি জমা দিবেন।

অনলাইনে ই পাসপোর্ট করার নিয়ম

এবার জানা যাক, সরকারি চাকরিজীবিরা সরকারি আদেশ না পেয়ে, ব্যক্তিগতভাবে পাসপোর্ট আবেদন কিভাবে করবেন।

এক্ষেত্রে আপনি ও সাধারণ পাসপোর্টের আবেদন করবেন। তবে আপনাকে অবশ্যই আপনার মন্ত্রণালয় বা অধিদপ্তর হতে অনাপত্তি সনদ বা (NOC) নিতে হবে। 

সাধারণ ই-পাসপোর্টের জন্য আবেদনের নিয়ম

অফিসিয়াল পাসপোর্টের জন্য আপনাকে ৫ বছর মেয়াদী ও সাধারন বা রেগুলার ডেলিভারীর জন্য আবেদন করতে হবে।

এক্ষেত্রে সাধারণ পাসপোর্ট দিয়েই আপনি জরুরী সুবিধা পাবেন। আপনাকে বাড়তি ফি দিতে হবেনা।

সাধারণ ই-পাসপোর্টের জন্য আবেদনের নিয়ম

সাধারণ ই-পাসপোর্টের জন্য যে ডকুমেন্টস প্রয়োজনঃ

যখন আপনি পাসপোর্ট আবেদনটি এনরোলমেন্টের জন্য জমা দিবেন, তখন আপনাকে অবশ্যই বলে দিতে হবে যে আপনি সরকারি চাকরিজীবি হিসেবে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করছেন। তাছাড়া, আপনার এনওসির কপি জমা দিবেন।

আরো পড়ুন- ই-পাসপোর্ট আবেদনের জন্য যা জানা প্রয়োজন

2 মন্তব্য

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন. ??

  1. সাধারণ পাসপোর্টে সরকারি চাকুরীজীবিদের ১০ বছর মেয়াদী পাসপোর্ট হয় কি না?

    উত্তরমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। না, সরকারি চাকরিজীবিরা সরকারি বিধিনিষেধের কারনে, ১০ বছর মেয়াদী পাসপোর্ট করতে পারবেন না।

      মুছুন