অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ডের ঠিকানা পরিবর্তন করার নিয়ম

আপনার NID ঠিকানা পরিবর্তন করতে চান? এখানে আমি অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ডের ঠিকানা পরিবর্তন করার নিয়ম দেখাবো।

অনলাইনে আপনি শুধুমাত্র আপনার হাউস নং এবং পোস্ট অফিস পরিবর্তন করতে পারেন। অর্থাৎ আপনি সম্পূর্ণভাবে জেলা, উপজেলা পরিবর্তন করতে পারবেন না।

কিন্তু বর্তমান ঠিকানা, স্থায়ী ঠিকানা বা ভোটার এলাকা পরিবর্তনের জন্য আপনাকে শারীরিকভাবে NID ঠিকানা পরিবর্তন ফর্ম জমা দিতে হবে।

আমরা অনেকেই জরুরি কারণে আমাদের বাড়ির বাইরে আমাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন করি। এছাড়া, আমরা স্থানান্তর বা বদলির কারণে আমাদের বর্তমান অবস্থান পরিবর্তন করতে পারি। সুতরাং, আমাদের আইডি কার্ডে আমাদের বর্তমান বা স্থায়ী ঠিকানা পরিবর্তন করতে হবে।

অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ডের ঠিকানা পরিবর্তন করার নিয়ম

অনলাইন থেকে আপনি কেবল আপনার বাড়ি নং, ডাকঘর এবং পোস্ট কোড (অবস্থান পরিবর্তন) পরিবর্তন করতে পারেন। এছাড়া, ভোটার এলাকা, উপজেলা ও জেলা পরিবর্তনের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্রের ঠিকানা পরিবর্তন ফরমটি পূরণ করে নির্বাচন অফিসে জমা দিতে হবে।

এখানে, আমি দেখাব কিভাবে সবকিছু করতে হয়।

অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ডের ঠিকানা পরিবর্তন করার জন্য আপনার কেবল ৫ টি ধাপ রয়েছে।

  • এনআইডি ওয়েবসাইটে নিবন্ধন
  • আপনার অনলাইন জন্ম নিবন্ধন বা ইউটিলিটি বিলের কপি বা জাতীয়তার সার্টিফিকেট হিসেবে আপনার ঠিকানা পরিবর্তন করুন।
  • জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন ফি প্রদান করুন
  • প্রমাণপত্র বা ডকুমেন্ট আপলোড করুন এবং আবেদন জমা দিন।

কিভাবে অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ডের ঠিকানা পরিবর্তন করবেন

অনলাইনে জাতীয় পরিচয়পত্রের বাসা নম্বর, পোস্ট অফিস ও পোস্ট কোড পরিবর্তন করতে পারবেন। এজন্য আপনাকে নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করতে হবে।

ধাপ ১: এনআইডি ওয়েবসাইটে নিবন্ধন - NID Wing Account Registration

প্রথমে আপনাকে জাতীয় পরিচয় শাখায় আপনার অ্যাকাউন্ট নিবন্ধন করতে হবে। এর জন্য আপনাকে আপনার নিড বা স্মার্ট কার্ড নম্বর, জন্ম তারিখ, বর্তমান এবং স্থায়ী ঠিকানা উপজেলা জানতে হবে।

আপনাকে সেলফি দিয়ে আপনার মুখ যাচাই করতে হবে। নিচের লিংকে দেখুন কিভাবে এনআইডি ওয়েবসাইটে একাউন্ট করবেন।

ধাপ ২: জাতীয় পরিচয়পত্রের ঠিকানা পরিবর্তন

এখন আপনার NID/ স্মার্ট কার্ড নম্বর দিয়ে NID ওয়েবসাইটে লগইন করুন। ঠিকানায় ক্লিক করুন (ঠিকানা)

ভোটার আইডি কার্ডের ঠিকানা পরিবর্তন করার নিয়ম

তারপর এডিট বাটনে ক্লিক করুন। আপনি এডিট করার অপশন দেখতে পাবেন। নিচের ছবিটি দেখুন।


লাল এরো চিহ্নিত বর্তমান ঠিকানার পাশে টিক দিবেন যদি আপনি বর্তমান ঠিকানায় ভোটার থাকতে চান। অথবা স্থায়ী ঠিকানায় ভোটার হতে চাইলে, নিচে স্থায়ী ঠিকানার পাশে টিক দিবেন।

এরপর আপনার  বাসা বা হোল্ডিং নম্বর, পোস্ট অফিস এবং পোস্ট কোড সঠিকভাবে লিখুন। এরপর Next (পরবর্তী) বাটনে ক্লিক করুন।

আপনার করা পরিবর্তনগুলি চেক করে দেখুন। যদি সবকিছু ঠিক থাকে, আবার পরবর্তী ক্লিক করুন। তারপর আপনাকে NID ফি দিতে হবে।

ধাপ ৩: জাতীয় পরিচয়পত্র ফি প্রদান করুন

এখন আপনাকে বিকাশ, রকেট বা অন্য কোন মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য পরিবর্তন ফি (230 টাকা) পরিশোধ করতে হবে।

এখানে দেখুন কিভাবে জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন ফি প্রদান করবেন

ধাপ ৪: আপনার ডকুমেন্ট বা প্রমাণপত্র আপলোড করুন এবং আবেদন জমা দিন

সবশেষে, নতুন ঠিকানা প্রমাণের জন্য আপনাকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আপলোড করতে হবে। এজন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন।

  • ডকুমেন্টের ক্যাটাগরি বা ধরণ সিলেক্ট করুন
  • স্ক্যান করা ডকুমেন্টগুলো আপলোড করুন
  • আবেদন জমা দিতে সাবমিট (সাবমিট) বাটনে ক্লিক করুন।

ভোটার আইডি কার্ডের ঠিকানা পরিবর্তন ফরম

আপনার বর্তমান ঠিকানা পরিবর্তনের কারণে যদি ভোটার এলাকা পরিবর্তন করতে চান আপনাকে নিচের দেখানো ভোটার ঠিকানা পরিবর্তন ফরম বা মাইগ্রেশন ফরম ১৩ পূরণ করে আপনার বর্তমান ঠিকানার নির্বাচন অফিসে জমা দিতে হবে।

ভোটার আইডি কার্ডের ঠিকানা পরিবর্তন ফরম

যেসব কারণে আপনার ভোটার এলাকা বা বর্তমান ঠিকানা পরিবর্তন করতে হতে পারে,

  • বাসা পরিবর্তন
  • বিয়ের কারণে নিজ ঠিকানা পরিবর্তন
  • এছাড়া অন্যান্য কারণ

কিভাবে ভোটার আইডি কার্ডের ঠিকানা পরিবর্তন ফরম পূরণ করবেন

0 মন্তব্য

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন. ??